চাউর

poribes news
5
(1)

6bb5d5.jpg

মোহরকুঞ্জে একটি ফিশটেল (Fishtail) পাম গাছে (বাংলা নাম “চাউর”) কাঁদি কাঁদি কুঁড়ি ও ফল ধরেছে। কুঁড়ির ঝুরিগুলি দেখতে ক্যারিবিয়ান মেয়েদের চুলের বিনুনির (plait) মতো। ভারী সৌন্দর্য তার। কি জানি কেন, এদের দেখলেই আমার সুবীর সেনের সেই কবেকার মিষ্টি গানটি মনে পড়ে যায়। আমি গেয়ে উঠি “কি ভালো লাগলো চোখে তোমায় দেখে, দূরের থেকে”।
কি ভীষণ ভারী, একটি ফলের কাঁদি তিনজনেও তুলতে কষ্ট হবে।
এখানে ফল পাড়া হয়না। যেদিন ফলগুলি শুকিয়ে ঝরে পড়বে, গাছটিও শুকিয়ে যাবে। এটিই এর ভবিতব্য।

fishtail-palm-01.jpg

ফিশটেলের উপপত্রগুলির দেখতে মাছের পুচ্ছ পাখনার মতো, তাই এই নাম। মাছের লেজ যেমন একটি হাল (rudder), এরও তেমনি। জোরে হওয়া বয় যখন, এর সব পাতা সেদিকে ফিরে যায়, গাছে বাতাস ধরে না।

চাউরের বৈজ্ঞানিক নাম Caryota urens. ভারত, শ্রীলঙ্কা ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার নানান দেশে পাওয়া যায়। বোটানিক্যাল গার্ডেন, আলিপুরের চিড়িয়াখানা ও কলকাতার নানান পথে পার্কে প্রচুর দেখা যায় ফিশটেল। এই গাছে বছরভর কাঁদি কাঁদি সাদা রঙের ফুল ফোটে। অপূর্ব সৌন্দর্য সে ফুলের। কিন্তু কদাচিৎ ফল ফলে। আর, দুঃখের কথা, একবার ফল ফললেই গাছটি মারা যায়। সেই কারণটি বলি।

fe5bd4983d319751434f2114b7096506.jpg

ফিশটেলের ফুল একলিঙ্গ, অর্থাৎ স্ত্রী ও পুরুষ ফুল আলাদা আলাদা গাছে ফোটে। কাছাকাছি বিপরীত লিঙ্গের গাছ না থাকলে পরাগমিলন হতে পারে না। আর একবার পরাগমিলন হলেই, ফুলগুলি ফল হয়ে যায়। আর তখনই গাছটি মারা যায়।
এইরকম একবার ফল দিয়ে মারা যায় যে গাছ পরিভাষায় তাদের বলে monocarpic plant. এর বিপরীত শব্দটি হল polycarpic. সেসব গাছ বছর বছর ফল ধারণ করে।
সে যাক।

ফিশটেলের গাছে ফুল ধরলেই গাছ মারা যায় না, মারা যায় তখনই যখন ফুলগুলি ফলে রূপান্তরিত হয়। তার কারণ ফল ধরলে গাছের মধ্যে যে রাসায়নিক পদার্থগুলি সৃষ্টি হতে থাকে, সেগুলি বিভিন্ন হরমোনের কাজ করে যা গাছের পাতায় উৎপন্ন খাদ্যের সবটুকুই ফলের বৃদ্ধিতে জোগান দিয়ে চলে। ফলে, গাছের অন্যান্য অংশ খাদ্যভাবে ক্রমশ ঝিমিয়ে পড়তে থাকে ও অবশেষে গাছটি মারা যায়।

dsc02538.jpg

উদ্ভিদ জগতে এমন গাছ অনেক আছে। কদিন আগে আমি Agave americana দেখেছিলাম, সেও এই জাতীয় গাছ।
আশ্চর্য!

ফিশটেলের ফল থেকে গুড়, মদ ইত্যাদি তৈরি হয় বলে এর অন্য নাম wine palm, jaggery palm  ইত্যাদি।

IMG-20191119-WA0023.jpg
লেখকঃ- ফাল্গুনি মজুমদার

লেখাটিকে কতগুলি ট্রফি দেবেন ?

Click on a star to rate it!

Average rating 5 / 5. Vote count: 1

No votes so far! Be the first to rate this post.

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  

Leave a Reply

Next Post

Quad Camera দিয়ে লঞ্চ হল OPPO K5, কতটা প্রত্যাশা পুরন করল OPPO

5 (1) চিনে ইতিমধ্যেই লঞ্চ হয়ে গেছে OPPO K5, এবং ইতিমধ্যে তারা জানিয়ে দিয়েছে ভারতে এই ফোন লঞ্চ করবে 26th December, 2019এ| Redmi, ASUS,SAMSUNG,HUWAEIএর মত brandদের সাথে লড়াই করার নতুন হাতিয়ার মনে করা হচ্ছে OPPO K5কে, কিন্তু সত্যিই কি OPPO K5 প্রত্যাশা পুরন করতে পারবে, জেনে নিন বাজারে কি নতুন […]
error: কপি নয় সৃষ্টি করুন
%d bloggers like this: