উদ্ভিদ কোষের গঠন

2.4
(16)

 

উদ্ভিদ কোষ (Plant Cell) ইউক্যারিয়টিক (Eukaryotic) প্রকৃতির। একটি উদ্ভিদ কোষ তৈরি হয় —-

কোষ প্রাচীর (Cell Wall) সব উদ্ভিদ কোষেই থাকে সেলুলোজ দিয়ে তৈরি প্রাথমিক কোষ প্রাচীর (Primary Cell Wall)। পরিনত কোষে প্রাথমিক প্রাচীরের বাইরে থাকে লিগনিন দিয়ে গঠিত গৌণ কোষ প্রাচীর (Secondary Cell Wall)।

কাজ —- কোষকে আঘাত থেকে রক্ষা করা, কোষের আকার বজায় রাখতে সাহায্য করা।

কোষ পর্দা (Plasma Membrane) এটি তৈরি দ্বি-স্তরীয় ফসফোলিপিড দিয়ে।

কাজ —- কোষের সীমা নির্দিষ্ট করা, সাইটোপ্লাজমকে ভিতরে ধরে রাখা, আংশিক ভেদ্য পর্দা হিসাবে কাজ করা, অভিস্রবনে সাহায্য করা।

সাইটোপ্লাজম (Cytoplasm) কোষ পর্দার ভিতরের তরলটি হচ্ছে সাইটোপ্লাজম। এর মধ্যে ভেসে আছে পর্দা দিয়ে তৈরি কোষ অঙ্গানু (Cell organelle) এবং প্রোটিন তন্তু দিয়ে তৈরি সাইটোস্কেলিটন (Cytoskeleton)। সাইটোস্কেলিটন হল প্রোটিন তন্তুর একটি নেটওয়ার্ক যেটি সাইটোপ্লাজম জুড়ে ছড়িয়ে থাকে।

কাজ —- সাইটোস্কেলিটন সাইটোপ্লাজমের চলনে সাহায্য করে, কোষের আকার প্রদান করে, এটি কোষ বিভাজনে বিশেষ ভূমিকা গ্রহণ করে। সাইটোপ্লাজমে বিভিন্ন সংশ্লেষ ও বিপাক প্রক্রিয়াগুলি সম্পন্ন হয়।

নিউক্লিয়াস (Nucleus) পর্দা ঘেরা নিউক্লিয়াসের মধ্যে জেনেটিক পদার্থ সুরক্ষিত থাকে।

কাজ —- জেনেটিক পদার্থ সুরক্ষিত রাখা, রাইবোজোমাল আর এন এ (RNA) সংশ্লেষ করা।

এন্ডোপ্লাসমিক রেটিকিউলাম (Endoplasmic Reticulum) দ্বি-স্তরীয় পর্দা ঘেরা নলাকার (Tubular) ও থলির (Cisternae) মত অংশ দিয়ে তৈরি এন্ডোপ্লাসমিক রেটিকিউলাম। এটি দু রকমের হয়। দানাদার ও মসৃণ। দানাদারের গায়ে রাইবোজম লেগে থাকে।

দানাদার এন্ডোপ্লাসমিক রেটিকিউলাম (Rough Endoplasmic Reticulum)

কাজ —- এটি প্রোটিন পরিবহনের সাথে যুক্ত।

মসৃণ এন্ডোপ্লাসমিক রেটিকিউলাম (Smooth Endoplasmic Reticulum)

কাজ —- এটি লিপিড ও মেমব্রেন তৈরির সাথে যুক্ত।

গলজি (Golgi Apparatus) 4 থেকে 8 টি থলি (Cisternae) একটির উপর আরেকটি এইভাবে সাজানো থেকে গলগি অ্যাপারেটাস তৈরি করে।

কাজ —- প্রোটিন পরিবহন।

রাইবোজম (Ribosome) ইউক্যারিয়টিক রাইবোজম 80 এস প্রকৃতির। দুটি অংশ (Sub-unit) থাকে, একটি 60 এস, অন্যটি 40 এস।

কাজ —- প্রোটিন সংশ্লেষ।

মাইটোকনড্রিয়া (Mitochondria) কোষের শক্তি উৎপাদনের সাথে যুক্ত।

কাজ —- এটিপি উৎপাদন।

পারঅক্সিজম (Peroxisome) এক স্তরীয় পর্দা ঘেরা অঙ্গানু।

কাজ —- ফ্যাটি অ্যাসিড অক্সিডেশন হয়।

ভ্যাকুওল (Vacuole) বড় বড় ভ্যাকুওল কোষের অনেকটা অংশ জুড়ে থাকে। ভ্যাকুওলের পর্দাকে বলে টোনোপ্লাস্ট।

কাজ —- অভিস্রবন চাপ বজায় রাখা, জলের সাম্য নিয়ন্ত্রণ করা।

ক্লোরোপ্লাসট (Chloroplastid) এটি ক্লোরোফিল যুক্ত কোষ অঙ্গানু। ক্লোরোফিল থাকে ফলে সবুজ দেখায়। দুটো পর্দা থাকে, বাইরের আর ভিতরের, ভিতরের পর্দার ভিতরে থাকে স্ট্রোমা। যার মধ্যে থাকে তৃতীয় পর্দা, এই তৃতীয় পর্দাকে বলে থাইলাকয়েড পর্দা এবং এই পর্দা দ্বারা যে থলিগুলি গঠিত হয়েছে তাদের বলে থাইলাকয়েড থলি। থলির ভিতরের অংশ কে বলে লুমেন, থলিগুলি একে অপরের উপর পর পর সাজানো থাকে থামের আকারে, থাম গুলিকে বলে গ্রানা, একটি গ্রানাম অন্য গ্রানামের সাথে যে থাইলাকয়েড পর্দা দিয়ে যুক্ত তাঁকে বলে স্ট্রোমা ল্যামেলি।

কাজ —- সালোকসংশ্লেষ করা।

অন্যান্য প্লাসটিড (Other Plastids) অন্যান্য প্লাস্টিড গুলি হল ক্রোমোপ্লাস্ট, লিউকোপ্লাস্ট।

কাজ —- বর্ণ নির্ধারণ করা, খাদ্য সঞ্চয় করা।

সিদ্ধার্থ গৌতম

লেখাটিকে কতগুলি ট্রফি দেবেন ?

Click on a star to rate it!

Average rating 2.4 / 5. Vote count: 16

No votes so far! Be the first to rate this post.

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •   
  •   
  •  

Leave a Reply

Next Post

ক্লোরোপ্লাস্টের গঠন ও কাজ

2.4 (16) ক্লোরোপ্লাস্ট (Chloroplast) উদ্ভিদ কোষের একটি কোষ-অঙ্গানু (Sub-cellular Organelle)। ক্লোরোফিলের উপস্থিতির কারনে সবুজ দেখায়। ক্লোরোপ্লাস্টের নিজস্ব ডি এন এ (DNA), আর এন এ (RNA) ও রাইবোজোম (Ribosome) আছে। এর বিভিন্ন অংশগুলি হল —- বাইরের পর্দা বা আউটার মেমব্রেন (Outer Membrane) এটি একেবারে বাইরের পর্দা। এটি ফসফোলিপিড দিয়ে গঠিত। ভিতরের […]
error: কপি নয় সৃষ্টি করুন
%d bloggers like this: