পরিবেশ কর্মীর চোখে ভারতের  কৃষি বিল – ২০২০ 

একজন পরিবেশকর্মী হিসাবে ভারতের তিনটি কৃষি বিলকে বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করছি । 

এক – The Farmers Produce Trade and Commerce Bill, 2020

এই বিলের কতগুলি গুরুত্বপূর্ন পয়েন্ট নিয়ে বলি । 

১। কৃষক তার ফসল এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে বিক্রি করতে পারবে । এটা নতুন কিছু না , কৃষক চাইলে আগেও নিজের ফসল অন্য রাজ্যে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করতে পারতেন । 

২।কৃষকরা শপিং মল, কোম্পানিগুলিকে সরাসরি ফসল বিক্রি করতে পারবে । আগে কৃষকরা সরকারি লাইসেন্সপ্রাপ্ত কৃষি মান্ডিতে ফসল বিক্রি করত , শপিং মল বা বড় বড় কোম্পানিগুলি কৃষি মান্ডি থেকে ফসল কিনত । 

নতুন বিলে খাতায় কলমে কৃষকের লাভ হতে পারে – কারন কৃষক সরাসরি কোম্পানিগুলিকে ফসল বিক্রি করতে পারছে – মাঝে মিডল ম্যান থাকছে না – কৃষক বেশি দাম পেতে পারে । তবে এতে মিডল ম্যান মানে মধ্যবর্তী ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হতে পারে – তাদের ব্যবসা কম হবে । 

অর্থাৎ এই বিলে মধ্যবর্তী ব্যবসায়ীরা বেকার হবে, কৃষকদের লাভ হলেও হতে পারে, আবার নাও হতে পারে । বড় ব্যবসায়ী মানে Jiomart এর মতো কোম্পানিগুলির লাভ হবেই – তারা যেমন কম দামে ফসল পাবে তেমনি ধীরে ধীরে তারা কৃষিকে নিজেদের হাতের মুঠোয় নিয়ে আসবে । অন্তত এই জন্য কৃষক বিলকে আইনে পরিণত হতে দিলে “আসল ভারতের” সমূহ ক্ষতি । 

দুই – The Farmers Agreement on Price Assurance and Farmer Services Bill, 2020

এই বিলের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট নিয়ে বলি । 

১। এটা অনেকটা ইংরেজ আমলে নীলকর সাহেবদের দাদন দেওয়ার মতো । এই বিল অনুসারে Jiomart , Bigbasket এর মতো কোম্পানিগুলি কৃষকের সাথে চুক্তি করতে পারবে । ধরুন Jiomart আপনাকে এসে বললো আপনার ১ বিঘা  জমিতে কলা চাষ করুন , আপনাকে কলা চাষ করতে ৫০ হাজার দিচ্ছি , সমস্ত বছরে যা কলা হবে সব Jiomart নেবে । বিষয় খাতায় কলমে প্রাথমিকভাবে কৃষকের লাভ হলেও যতো দিন যাবে কৃষকের অন্যান্য সব বাজার বন্ধ হয়ে যেতে থাকবে , তখন Jiomart কে কম দামেই দিতে বাধ্য হতে হবে । এছাড়া কৃষকের আর নিজের মতো করে চাষ করার উপায় থাকবে না । অনেকটা নীল চাষের ২০২০ সংস্করণ । 

তিন – The Essential Commodities Bill, 2020

এই বিলের গুরুত্বপূর্ন পয়েন্ট । 

আগে বড় বড় ব্যবসায়ীরা , কোম্পানিগুলি ফসল খুব বেশি সঞ্চয় করে রাখতে পারত না – এই বিল অনুসারে পারবে । এটা একেবারে Jiomart দের কথা ভেবে করা হয়েছে । এর ফল ফসলের দাম সম্পূর্ন ভাবে Jiomart, Bigbasket রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে – কৃষক বা সরকারের কিছু করার থাকবে না । ফলে প্রথম দিকে সাধারন মানুষ কিছুটা কম দামে সবকিছু পেলেও যতো দিন যাবে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়তে থাকবে । 

তিনটি বিল ভালো ভাবে বিশ্লেষণ করলে বুঝতে অসুবিধা হবে না – কোথাও সাধারন মানুষের মানে “আসল ভারত”- এর স্বার্থ রক্ষিত হচ্ছে না । ফলে বিলগুলিকে কখনোই আইনে পরিণত হতে দেওয়া যায় না । সরকারের উচিৎ বিল প্রত্যাহার করা । 

 

 

 

রাহুলদেব বিশ্বাস

পরিবেশকর্মী 

 

Published by @

পরিবেশ, পরিবেশ আন্দোলন, দূষণ, গাছ, নদী, পাহাড়, সাগর

Leave a Reply

%d bloggers like this: